এখনও ফাইনালে ওঠার সুযোগ রয়েছে: মাশরাফি

আর্টিকেল: গ্রূপ পর্বের দ্বিতীয় ও শেষ ম্যাচে আফগানিস্তানের কাছে শোচনীয় হার। এর পরদিন সুপার ফোরের ম্যাচে ভারতের কাছেও প্রতিরোধবিহীন পরাজয়। ইনজুরি আক্রান্ত দল, সেই সাথে বেশিরভাগ খেলোয়াড়ের ফর্মহীনতা। তবুও এখনও এশিয়া কাপের ফাইনালের আশা ছাড়ছেন না বাংলাদেশ দলের অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা।

টানা দুই ম্যাচে পরাজয় হতাশাজনক ব্যাপার হলেও এখনই ভেঙে পড়ার মত পরিস্থিতি দেখছেন না মাশরাফি। ম্যাচ শেষে সংবাদমাধ্যমের সাথে আলাপকালে বাংলাদেশ অধিনায়ক বলেন-

‘এমন বাজে অবস্থার মধ্যেও এখনও ফাইনাল খেলা সম্ভব। আমার মতে এখনই এত হতাশ হওয়ার কিছু নেই। যদিও দুই ম্যাচে টানা দু’টি পরাজয় মন খারাপের বিষয়, বিশেষ করে এই ম্যাচে। আজকেও ব্যাটিং আমাদের ভুগিয়েছে।’

তবে নিজেদের ব্যাটিং-ব্যর্থতার আসরেও এখনও মাশরাফির মনে জিইয়ে রয়েছে ফাইনালের আশা, যেখানে এর আগেই দুইবার খেলেছে বাংলাদেশ। মাশরাফি বলেন, ‘তবে এখনও ফাইনালে ওঠার সুযোগ রয়েছে। যদি আফগানিস্তানের বিপক্ষে আমরা জিততে পারি, তাহলে ফিফটি ফিফটি সুযোগ নিয়ে পাকিস্তানের মোকাবেলা করতে পারব। মনে রাখতে হবে যে এখনও আমরা ছিটকে যাইনি। আমাদের ভুলগুলো সংশোধন করতে হবে। হাতে পুরো একটি দিন আছে।’

ইনজুরির কারণে আসরের প্রথম ম্যাচেই ছিটকে পড়েন দলের সেরা ব্যাটসম্যান এবং বাঁহাতি ওপেনার তামিম ইকবাল। তামিমের বদলি হিসেবে নেমে নাজমুল হোসেন শান্ত দলকে এনে দিতে পারছেন না ভালো শুরু। যথারীতি ব্যর্থ ওপেনার লিটন দাসও। পারফরম্যান্সে তো প্রভাব পড়ছেই। তবে তামিমের অনুপস্থিতিতে ড্রেসিংরুমে পড়ছে না কোনো প্রভাব, জানিয়েছেন মাশরাফি, ‘ড্রেসিংরুমে এর কোনো প্রভাব নেই।

আসলে ইনিংসের শুরুতে উইকেট পড়ে গেলে ম্যাচে ফেরা খুব কঠিন। প্রত্যেক ম্যাচেই দুই-তিনটা উইকেট পড়ে যাচ্ছে শুরুতে। তারপরই ড্রেসিংরুমে কিছুটা হলেও দুশ্চিন্তা ছড়িয়ে পড়ছে। প্রথম ম্যাচে তাও আমরা ঘুরে দাঁড়িয়েছিলাম। দ্বিতীয় ম্যাচে বোলারদের সঙ্গে পেরে উঠিনি, ব্যর্থ হলাম আজও। ২৫০-২৬০ হলে এই উইকেটে হয়তো খেলাটা অন্যরকম হতে পারত।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *