এলএনজি যুগে বাংলাদেশ

আর্টিকেল: আমদানি করা তরলীকৃত প্রাকৃতিক গ্যাস এলএনজির যুগে প্রবেশ করছে দেশ। আজ শনিবার জাতীয় গ্রিডে এলএনজির সরবরাহ শুরু হবে। এর মধ্য দিয়ে দেশে এলএনজির যুগও শুরু হবে।

বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন, তীব্র গ্যাস-সংকট সমাধানে এ গ্যাস দেশবাসী ও শিল্প কারখানা মালিকদের আশার কথা শোনাবে। পেট্রোবাংলা সূত্র সংবাদ মাধ্যমকে জানিয়েছে, এলএনজি দিয়ে চট্টগ্রামের চাহিদা মিটে গেলে দেশের অন্যান্য স্থানে গ্যাসের চাপ বেড়ে যাবে।

জ্বালানি বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, জাতীয় গ্রিডে এলএনজি পৌঁছে দেয়ার জন্য সব কিছু চূড়ান্ত। আজ শনিবার কর্ণফুলী গ্যাস কোম্পানির পাইপলাইনে আনুষ্ঠানিকভাবে এলএনজি সরবরাহ শুরু হবে।

তবে এ নিয়ে কোনো ধরনের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধনী অনুষ্ঠান করা হবে না। পরে দিনক্ষণ ঠিক করে উদ্বোধনী অনুষ্ঠান করা হবে। প্রতিদিন ২৮৩ কোটি ঘনফুট গ্যাস সরবরাহ করে রাষ্ট্রায়ত্ত সংস্থা পেট্রোবাংলা। দেশে গ্যাসের চাহিদা এর চেয়ে অনেক বেশি। গ্যাসের অভাবে দেশের শিল্পকারখানা পুরোদমে উৎপাদনে যেতে পারছে না। সারা দেশে সাড়ে ৩ হাজারের বেশি শিল্পকারখানায় গ্যাস সংযোগের অনুমতি দিয়েও সংকটের কারণে গ্যাস দিতে পারছে না সরকার। এ সংকট সমাধানে সরকার এলএনজি আমদানির পরিকল্পনা করে।

শুক্রবার জ্বালানি সচিব আবু হেনা মো. রহমাতুল মুনিমের নেতৃত্বে উচ্চপর্যায়ের এক সভায় শনিবার থেকে জাতীয় গ্রিডে এলএনজি সরবরাহের সিদ্ধান্ত হয়। প্রাথমিকভাবে শুধু চট্টগ্রামের কর্ণফুলী গ্যাস কোম্পানির পাইপলাইনে এলএনজি সরবরাহ করা হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *