‘দরকার হলে এক পা দিয়েই ফাইনাল খেলবো’

খেলাধুলা: ইংল্যান্ডকে ২-১ গোলে হারিয়ে রাশিয়া বিশ্বকাপের ফাইনালে উঠেছে ক্রোয়েশিয়া। এ নিয়ে প্রথমবারের মতো বিশ্বকাপের ফাইনালের টিকিট কাটল ক্রোয়াটরা। এমন মহাগুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে মাঝমাঠের দক্ষ সৈনিক ইভান রাকিটিচকে খুবই দরকার ছিল তাদের। সেই দাবিও মিটিয়েছেন তিনি।

কিন্তু আপনি কী জানেন? অন্য কারো পক্ষে হয়তো সেই চাহিদা পূরণ করা সম্ভব হত না। ১০২ ডিগ্রি জ্বর নিয়ে দায়বদ্ধতা পূরণ করেছেন রাকিটিচ। এ অবস্থাতেই গোটা মাঠ দাপিয়ে বেড়িয়েছেন ক্রোয়েশিয়ার সাফল্যের অন্যতম চাবিকাঠি।

বিষয়টি জানিয়েছেন খোদ রাকিটিচই। তিনি বলেন, গতরাতে আমার গায়ে জ্বর ছিল ১০২ ডিগ্রি ফারেনহাইট। কোথাও বের হতে পারিনি। কারো সঙ্গে সেভাবে যোগাযোগ করতে পারিনি। বিছানায় শুয়ে সেমিফাইনালে খেলার মত শক্তি সঞ্চয় করেছি। তবে ভেবে ভাল লাগছে, আমার কষ্ট বৃথা যায়নি।

আগামী ১৫ জুলাই মস্কোর লুঝনিকি স্টেডিয়ামে ফাইনাল লড়াইয়ে ফ্রান্সের মুখোমুখি হবে ক্রোয়েশিয়া। এটা অবশ্যই ক্রোয়াটদের জন্য সুবর্ণ সুযোগ রূপকথার গল্প লেখার। তা লিখতে বদ্ধপরিকরও ৩০ বছর বয়সী মিডফিল্ডার, ‘ফাইনালে খেলতে আমি মুখিয়ে আছি। শিরোপা নির্ধারণী ম্যাচে এক পা বাদ দিয়েও যদি আমাকে খেলতে হয়, তবু খেলবো।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *