সাকিবকে তুচ্ছ করে ভারতীয় টিভি চ্যানেলের প্রতিবেদন

খেলাধুলা: বাংলাদেশি ক্রিকেটার সাকিব আল হাসানকে হেয় করে প্রতিবেদন প্রচার করেছে একটি ভারতীয় টিভি চ্যানেল। শুক্রবার নিদাহাস ট্রফির ফাইনাল নিশ্চিত করা ম্যাচে সাকিবের প্রতিবাদী আচরণের জেরে তাকে ‘বেতমিজ’ বা ‘উদ্ধত’ বলে আখ্যা দিয়েছে টেলিভিশন চ্যানেলটি।

ঐ বিতর্কিত টেলিভিশন চ্যানেলটির নাম ‘আজ তাক’। এটি মূলত সংবাদভিত্তিক টেলিভিশন চ্যানেল।

হিন্দি ভাষায় প্রকাশিত টেলিভিশন চ্যানেলটির সাম্প্রতিক একটি প্রতিবেদনে দেখা যায়, শুক্রবার বাংলাদেশ ও শ্রীলঙ্কার মধ্যকার ম্যাচের শেষদিকে সৃষ্টি হওয়া উত্তেজনাপূর্ণ পরিস্থিতিতে বাংলাদেশের খেলোয়াড়দের ভূমিকাকে কড়াভাবে সমালোচনা করা হচ্ছে।

ঐ সময়ে আম্পায়ার একটি নো বল দেওয়ার কথা থাকলেও সেটি দেননি, আর এ নিয়েই প্রতিবাদ জানিয়েছিল বাংলাদেশ। কিন্তু টেলিভিশন চ্যানেলটিতে বাংলাদেশের এই প্রতিবাদকে প্রকাশ করা হয়েছে ‘উদ্ধত আচরণ’ হিসেবে।

বাংলাদেশ ক্রিকেটে উন্নতি করলেও আচরণ শিখেনি- এমনটাও উল্লেখ করা হয় ঐ প্রতিবেদনে। ফাইনালে ভারতের বিপক্ষে এমন ‘উদ্ধত আচরণ’ করলে মাঠেই ভারতের খেলোয়াড়েরা সমুচিত জবাব দেবেন, এমন অদ্ভুত ভবিষৎবাণীও করে বসে টেলিভিশন চ্যানেলটি।

সেই সাথে বাংলাদেশ অধিনায়ক সাকিব আল হাসানের নামকে সাকিব আলী বলে ভুলভাবে সম্বোধন করা হয়।

ক্রিকেট নিয়ে সম্প্রচারিত এমন অনুষ্ঠান কিংবা প্রতিবেদনে সাধারণত ক্রিকেট বিশেষজ্ঞদের আনা হয়। কিন্তু হিন্দি ভাষায় ক্রিকেট নিয়ে বলা ঐ অনুষ্ঠানের উপস্থাপক কতটুকু ক্রিকেট জ্ঞান কিংবা ক্রিকেটের স্পিরিট ধারণ করেন, সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমগুলোতে জোরেশোরে উঠছে সেই প্রশ্ন।

এর আগেও ক্রিকেটীয় আলোচনায় বিতর্কের জন্ম দিয়েছিল ‘আজ তাক’ নামের এই ভারতীয় চ্যানেল। ২০১৬ সালের মার্চে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে বিরাট কোহলির দুর্দান্ত এক ইনিংসের প্রশংসা করে সরাসরি সম্প্রচারিত অনুষ্ঠানে ভাষ্য দিচ্ছিলেন পাকিস্তানের কিংবদন্তী ক্রিকেটার ওয়াসিম আকরাম।

এ সময় হুট করে কয়েকজন লোক টেলিভিশন সেটে প্রবেশ করে তার মাইক্রোফোন কেড়ে নেন। ঘটনার আকস্মিকতায় অবাক ওয়াসিম আকরাম সেদিন ভয়ে সরাসরি সম্প্রচারিত অনুষ্ঠানেই চেয়ার ছেড়ে দাঁড়িয়ে পড়েন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *