গিনেজ বুকে নিজের নাম তুলতে চান মেয়র সাঈদ খোকন

জাতীয় আর্টিকেল: রাজধানীর দক্ষিণ অংশে পরিচ্ছন্নতা অভিযান চালিয়ে গিনেজ বুকে নাম তুলতে চান মেয়র সাঈদ খোকন। এই পরিচ্ছন্নতা অভিযান শুরুর আগের দিন নগর ভবনের পক্ষ থেকে ‘হটলাইন’ চালুর কথা জানিয়ে এই আশার কথাও জানান মেয়র।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৯৮তম জন্মদিনে শনিবার রাজধানীর দক্ষিণ অংশ শুরু হচ্ছে বিশেষ পরিচ্ছন্নতা অভিযান, যা চলবে এক সপ্তাহ ব্যাপী। এর নাম রাখা হয়েছে, ‘স্বচ্ছ ঢাকা কর্মসূচি’।

আগের দিন শুক্রবার নগরভবনে সংবাদ সম্মেলন করেন মেয়র খোকন। এ সময় তিনি ‘স্বচ্ছ ঢাকা কর্মসূচি’ সফল করতে একটি হটলাইন চালু করেন। মেয়র জানান, কোনো এলাকা বা বাড়ির পাশে বর্জ্য থাকলে ০৯৬১১০০০৯৯৯ নম্বরে কল করলেই পরিচ্ছন্নতা কর্মীরা তা অপসারণ করে দেবেন।

এ নিয়ে গত এক বছরে মোট চারটি হটলাইন চালু করল নগর কর্তৃপক্ষ। এর আগে ২০১৭ সালে চিকুনগুনিয়ার বিস্তারের সময় চিকিৎসা সেবার জন্য, গত ঈদুল আযহার সময় কোরবানির পশুর বর্জ্য অপসারণের জন্য এবং গত শীতে মৌসুমে চিকিৎসা সেবার জন্য একটি করে হটলাইন চালু করে।

২৩ মার্চ পর্যন্ত ‘স্বচ্ছ ঢাকা কর্মসূচি’ চালিয়ে গিনেজ বুকে জায়গা করে নেয়ার আশার কথাও সংবাদ সম্মেলনে বলেন মেয়র খোকন। জানান, শনিবার সকাল ১১টায় নগর ভবনের সামনে থেকে কর্মসূচির উদ্বোধন হবে। আর সপ্তাহব্যাপী নগরবাসীকে পরিচ্ছন্নতায় উদ্বুদ্ধ করতে শোভাযাত্রা, আলোচনা সভা, সেমিনার, চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা করা হবে।

আর এই পুরো সপ্তাহজুড়েই নগর কর্তৃপক্ষের কয়েক হাজার পরিচ্ছন্ন কর্মী নগরীর বর্জ্য অপসারণ করবেন।

মেয়র বলেন, ‘নগরবাসীকে স্বচ্ছ জীবনে উদ্বুদ্ধ করতে আমরা ২৩ তারিখে গিনেজ বুকে নতুন রেকর্ড করব। আমাদের পার্শ্ববর্তী দেশ পাঁচ হাজার সাতশ কর্মী নিয়ে অভিযান চালিয়ে এই রেকর্ড করেছে, আমরা এটাকে ভেঙে নতুন রেকর্ড করতে চাই। পরিচ্ছন্নতা বিষয়ে হবে এই রেকর্ড।’

মেয়র বলেন, “শুধু শহর নয় নাগরিকের পোশাক এবং মন-মানসিকতায়ও পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা আনতেই ‘স্বচ্ছ ঢাকা কর্মসূচি’ চালানো হবে। এটি সুচারুরুপে পালনে নাগরিকদের সহায়তা প্রয়োজন।”

এক প্রশ্নের জবাবে মেয়র খোকন বলেন, ‘ধুলাবালির দূষণ থেকে শহরকে মুক্ত রাখতে আমাদের কার্যক্রম আছে। তবে এটার মূল দায়িত্ব আমাদের নয়। এর মূল দায়িত্ব পরিবেশ অধিদপ্তরের। তবে অধিদপ্তরকে সহায়তা করার জন্য কিছু সংখ্যক গাড়ি দিয়ে পানি ছেটানো হচ্ছে।’

অন্য এক প্রশ্নে মেয়র বলেন, ‘চিকুনগুনিয়া নিয়ে আমরা এবার সতর্ক। প্রাদুর্ভাব তো দূরের কথা, চিকুনগুনিয়া যেন ছড়িয়ে পড়তে না পারে সে ব্যাপারে আমরা সব পদক্ষেপ নেব।’

মশা মারার অস্ত্র হিসেবে গাপ্পি মাছ ছাড়ার প্রকল্পের অগ্রগতি কতদূর-জানতে চাইলে মেয়র বলেন, ‘অনেক এলাকার ড্রেনের পানি শুকিয়ে গেছে। তবে প্রাথমিক কার্যক্রম হিসেবে অঞ্চল-২ ও অঞ্চল-৪ এ গাপ্পি মাছ ছাড়ার উদ্যোগ নেওয়া হবে।’

সংবাদ সম্মেলনে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা খান মোহাম্মদ বিল্লাল, প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা সালাহউদ্দিন আহমেদসহ শীর্ষ কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *