পাকিস্তানকে রক্ষা করতে মাঠে নেমেছে চীন, সৌদি আরব ও তুরস্ক

আন্তর্জাতিক আর্টিকেল: পাকিস্তানে জঙ্গিদের আর্থিক সাহায্য আটকাতে বারবার কড়া হতে চাইছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ট্রাম্প প্রশাসন। গত জানুয়ারিতে বেশ কড়া পদক্ষেপই নেন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। ইসলামাবাদকে একেবারে আষ্টেপৃষ্ঠে বেঁধে ফেলতে চেয়েছিল ওয়াশিংটন। কিন্তু এবার পাকিস্তানকে বাঁচাতে মাঠে নেমেছে তিন দেশ- চীন, সৌদি আরব ও তুরস্ক।

সম্প্রতি, ফিনান্সিয়াল অ্যাকশন টাস্ক ফোর্স পাকিস্তানকে তিনমাসের অব্যহতি দিয়েছে। বুধবারই সেকথা ঘোষণা করেছে ইসলামাবাদ। তারা জানিয়েছে যে, তিন মাস তাদের ওই শাস্তি থেকে অব্যাহতি দেওয়া হচ্ছে।

আসলে যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে মত পার্থক্য হয়েছে সৌদি আরবের। ‘গলফ কর্পোরেশন কাউন্সিল’-এর তরফ থেকেই ছিল সৌদি আরব। যদিও যুক্তরাষ্ট্র এখনো চেষ্টা করে চলেছে যাতে ফিনান্সিয়াল অ্যাকশন টাস্ক ফোর্স তাদের ওই সিদ্ধান্ত ফিরিয়ে নেয়।

ফিনান্সিয়াল অ্যাকশন টাস্ক ফোর্স হল একটি আন্তর্জাতিক সংগঠন, যারা জঙ্গিদের ফান্ডিং-এর বিষয়টা দেখে। তাদেরই বৈঠক ছিল প্যারিসে। সেখানেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। যুক্তরাষ্ট্র চেষ্টা করছে যাতে নতুন করে ভোট হয়।

গত মাসে পাকিস্তানের ২০০ কোটি ডলার অনুদান বন্ধ করে দেয় যুক্তরাষ্ট্র। তাদের দাবি, হাক্কানি নেটওয়ার্ক ও তালেবানদের বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থাই নিচ্ছে না ইসলামাবাদ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *