শেষ পর্যন্ত টপটা গায়ে থাকবে তো, কান্নায় ভেসে যাচ্ছিলাম, কিন্তু থামিনি’

খেলাধুলাঃ দক্ষিণ কোরিয়াতে চলছে শীতকালীন অলিম্পিক। কিন্তু এবারের আসরে একের পর এক ঘটছে বিব্রতকর ঘটনা। সোমবার অলিম্পিকে যোগ্যতা অর্জনের পর্বে আইস স্কেটিং-এ নেমেছিলেন গ্যাব্রিয়েলা এবং সিজেরন। সব কিছুই ঠিকঠাক এগোচ্ছিল।

কিন্তু একটা মুহূর্তে এসে সিজেরনের সঙ্গে ‘মুভ’ করার সময় দেখা যায়, গ্যাব্রিয়েলার পোশাকের বাঁ দিকের অংশ নিচের দিকে নামতে শুরু করেছে। হঠাৎই তা খুলে যায়। আর তাতেই উন্মোচিত হয়ে পড়ে তার বাঁ দিকের বক্ষ। আর এতেই বিব্রতকর পরিস্থিতিতে পড়েন গ্যাব্রিয়েলা।

বহু মানুষের সামনে দাঁড়ানো অবস্থায় পোশাক খুলে পড়ার অনেক উদাহরণ রয়েছে। জনতার সামনে লজ্জায় পড়েছেন অনেক অভিনেত্রী। তবে ফ্রান্সের আইস স্কেটার গ্যাব্রিয়েলা পাপাদাকিসের পোশাক খুলে যাওয়ার পর তিনি যা করেছেন তা আর দশ জনের থেকে আলাদা।

পারফরমেন্সের সময় হঠাৎ করেই পোশাকের উপরের বাঁ দিকটা খুলে যাওয়ার পর বুকের একাংশ বেরিয়ে যায় তার। চোখ ভেসে যাচ্ছে তার কান্নায়। তবে শারীরিক কসরত থামিয়ে দেননি তিনি।

পুরুষ সঙ্গী গুইলাউমে সিজেরনের সঙ্গে সমান তালে স্কেটিং করে গেছেন। দর্শকরা ওই সময় মুগ্ধ হয়ে জুটির পারফরম্যান্স দেখেছেন।

পারফরমেন্স শেষে গ্যাব্রিয়েলা জানান, ভয়ঙ্কর দুঃস্বপ্ন এটা! বারে বারেই নিজেকে বলছিলাম, থামলে চলবে না। এগিয়ে যেতে হবে। একটা সময় তো মনে হচ্ছিল, আর পারব না। সবটাই খুলে যাচ্ছে যেন; শেষ পর্যন্ত টপটা গায়ে থাকবে তো এমন ভাবনাও এসেছে! কান্নায় ভেসে যাচ্ছিলাম। কিন্তু, থামিনি এক বারের জন্যও।

ওই পরিস্থিতিতে এরকম ভালো পারফরমেন্স কীভাবে করা সম্ভব? গ্যাব্রিয়েলার ভাষায়, সেটা ভেবেই গর্ব হচ্ছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *