শাকিবের প্রতি অপুর শেষ অনুরোধ যা ছিল

বিনোদন আর্টিকেল: দুজন দুজনকে ছেড়ে যাচ্ছেন। না দুজন নয়, একজন অপরজনকে ছেড়ে চলে যাচ্ছেন। অমন সময় তীর্থের কাকের মতো দাঁড়িয়ে থাকা স্ত্রী তাঁর স্বামীকে বললো, তুমি চলে যাচ্ছো, কিন্তু আমার শেষ অনুরোধটি রেখো।

তুমি আর বুবলীর সঙ্গে মেশো না, ছবি কোরো না। কিন্তু সেই স্বামী স্ত্রীর শেষ অনুরোধটিও রাখলেন না। মজে গেলেন কাজে, ডুবে গেলেন রসায়নে। স্ত্রীর অনুরোধে সাড়া না দিয়ে আবারও বুবলির সঙ্গে জমিয়েছেন রসায়ন।

না দর্শক, এটা কোন সিনেমাটিক গল্প নয়। শিগগির বিচ্ছেদ হতে যাওয়া শাকিব খান আর অপু বিশ্বাসের সংসারের এমন চিত্র এটি। দু`জনের ইচ্ছাতে নয়, বরং শাকিব খানের একক সিদ্ধান্তে বৈবাহিক জীবনের পর্দা নেমেছে বলে দাবি করেছেন তার স্ত্রী অপু বিশ্বাস।

ডিভোর্সের পর নিজের অবস্থান নিয়ে অপু বলেন, ‘আমি আর শাকিব খানকে নিয়ে কথা বলতে চাই না। সে আমার শেষ অনুরোধটিও রাখেনি। বলেছিলাম, আমার শেষ অনুরোধটি তুমি রাখবে? সে বলেছিলো রাখবো। এর পর বললাম বুবলির সঙ্গে আর ছবি নয়, আর মেশো না ওর সঙ্গে। কিন্তু শাকিব কথা রাখেনি।’

তবে শাকিব খান অভিযোগ করে বলেন, `সহ্যের সীমা আছে, অপুর জন্য কী করিনি, সে আমাকে স্বামী হিসেবে কখনো মানেনি।` আগামী ২২ ফেব্রুয়ারি আনুষ্ঠানিকভাবে শাকিব খান-অপু বিশ্বাসের বিচ্ছেদ হয়ে যাচ্ছে।

অপু বিশ্বাস বলেন, আমি নই, বরং শাকিবই আমাকে বিয়ের পর থেকে অবহেলা করেছে। তার কাছে আমার শেষ একটি অনুরোধ ছিল সে যেন বুবলীর সঙ্গে কাজ না করে।

কারণ শাকিব আর বুবলীর সম্পর্কে নানাজন নানা কথা আমাকে বলছিল। যা স্ত্রী হিসেবে আমি সহ্য করতে পারছিলাম না। কিন্তু শাকিব আমার এই অনুরোধকেও পাত্তা দেয়নি।

এদিকে অপু বলছেন, যা হওয়ার তা তো হয়ে গেছে। এখন আমার ধ্যান জ্ঞান একমাত্র আমার সন্তান আবরাম খান জয়। তার জন্য বাঁচব আর তাকে মানুষ করতে পরিশ্রম করে যাব। শাকিবকে নিয়ে আর কখনো কোনো কথা বলতে চাই না আমি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *