ভালবাসা দিবসে সবচেয়ে বেশি বিক্রিত জিনিস

আর্টিকেল: আজ মঙ্গলবার পহেলা ফাল্গুন। প্রথম দিনে বসন্ত বরণের মধ্য দিয়ে শীতকে বিদায় জানানো হয়েছে। দিনটিকে ঘিরে বয়স্করা যতটাই না ব্যস্ত তার চেয়েও বেশি ব্যস্ত তরুণ-তরুণীরা বিশ্ব ভালোবাসা দিবসকে কেন্দ্র করে। এ ব্যস্ততা মূলত প্রিয়জনকে উপহার দেওয়ার জন্যই।

বসন্তের হাওয়া শরীর ও মনকে দোলা দিয়ে এখন তরুণ-তরুণীদের মনে বিশ্ব ভালোবাসা দিবসের হাওয়া। পরপর দুটি বিশেষ দিবসের কারণে ব্যস্ত সময় পার করছে রাজধানীর বেশির ভাগ বিপণীগুলোও।

রাজধানীর পান্থপথে বসুন্ধরা সিটি সেন্টারে তৈরি পোশাকের বিপণী চিতা ডিজাইনের মালিক বলেন, বসন্তের প্রথম দিনে সব বয়সের লোকই তাদের পোশাকে পরিবর্তন এনেছে। এ জন্য আমরা ব্যস্ত সময় পার করছি। দুদিন আগেও এতো ভিড় লক্ষ্য করা যায়নি। অন্যান্য বছরের তুলনায় এ বছর তুলনামূলক বিক্রি বেশি।

তিনি আরও জানান, বিপণীটিতে বয়স্করা তাদের পছন্দ মতো পোশাক ক্রয় করলেও তরুণ-তরুণীরা তাদের প্রিয়জনের পছন্দ জেনেই পোশাক কিনছে। এক্ষেত্রে তরুণরা মোবাইল, পার্টস ব্যাগ, সাইড ব্যাগ কিনছে। অপরদিকে তরুণীরা টি-শার্ট, হাতঘড়ি ইত্যাদি কিনছে।

শপিং সেন্টারটিতে কেনাকাটা করতে আসা একদল তরুণ-তরুণীর সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, বসন্ত ও ভালোবাসা দিবস পরপর হওয়ায় পোশাকে যেমন পরিবর্তন আনতে হচ্ছে তেমনি প্রিয়জনের চাহিদা মতো উপহারও কিনে দিতে হচ্ছে। তাদের পছন্দের তালিকায় রয়েছে রকমারী পোশাক, মোবাইল, ছেলেদের হাতঘড়ি ও টি-শার্ট, মেয়েদের সাইড ও পার্টস ব্যাগ ইত্যাদি।

এছাড়াও রাজধানীর নীলক্ষেতে নিউমার্কেট ঘুরে বয়স্কদের তুলনায় তরুণ-তরুণীদের ভিড় ছিল চোখে পরার মতো। বসুন্ধরা সিটি সেন্টার থেকে ক্রেতাদের পছন্দের কিছুটা পরিবর্তন লক্ষ্য করা যায় এখানে। মার্কেটিতে কেনাকাটা করতে আসা তরুণ-তরুণীদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, তাদের পছন্দের তালিকায় মেয়েদের বোরকা ও ছেলেদের মানিব্যাগও যোগ করছেন।

ভিড় দেখা গেছে বিভিন্ন প্রসাধনীর দোকানগুলোতেও। ভিড় ছিল ওষুধের দোকানেও। এইসব দোকানের দোকানিরা বলছেন, বিভিন্ন ধরনের দেশি ও বিদেশী সাজগোজের সামগ্রী কিনতেই তরুণ-তরুনীরা ভিড় করছেন বেশি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *