শেষ পর্যন্ত ডিভোর্সের সিদ্ধান্ত মেনে নিলেন অপু

বিনোদনঃ শুটিংয়ের কাজে অস্ট্রেলিয়ায় থাকা শাকিব খান জানিয়েছেন, অপু বিশ্বাসের সঙ্গে আর বৈবাহিক সম্পর্ক রাখতে চান না তিনি। ফলে শাকিব-অপুর সম্পর্ক টিকে থাকার যে আলো মিটিমিটি করে জ্বলছিল, সে আলোটুকুও নিভে গেল।

শাকিব খানের মন্তব্যের প্রেক্ষিতে ১১ ফেব্রুয়ারি রবিবার বিকালে অপু বিশ্বাস বলেন, ‘শাকিব যা ভালো মনে করেছে, সেই সিদ্বান্তই গ্রহণ করেছে। তার তো স্বাধীনভাবে সিদ্বান্ত নেওয়ার অধিকার রয়েছে।’

আসছে ২২ ফেব্রুয়ারি শাকিব খান ও অপু বিশ্বাসের তালাক কার্যকর হচ্ছে। এরপর থেকে তারা হয়ে যাবেন ‘সাবেক দম্পতি’।

এর আগে শাকিব গণমাধ্যমকে বলেন, ‘একটা সম্পর্ক টিকিয়ে রাখার জন্য উভয়পক্ষের মধ্যে শ্রদ্ধা থাকতে হবে। আমি মনে করি, তা এখন আর অবশিষ্ট নেই। তবে আব্রামের ভালোর জন্য আমার সেরাটা দেওয়ার চেষ্টা করব। ওকে ভালো স্কুল-কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনার ব্যবস্থা করা, ওকে ভালো রাখা, ওকে প্রতিষ্ঠিত করার ব্যাপারে সব ধরনের সাপোর্ট দেবো।

ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের পারিবারিক আদালত সূত্রে জানা গেছে, কোনো পক্ষ তালাকের আবেদন করলে আদালতের কাজ হচ্ছে ৯০ দিনের মধ্যে উভয়কে তিনবার ডেকে সমঝোতার চেষ্টা করা। সে হিসেবে প্রথম তারিখ ছিল ১৫ জানুয়ারি। এরপর সালিশের নতুন তারিখ ধার্য করা হয় ১২ ফেব্রুয়ারি।

এ নিয়ে অপু বিশ্বাস বলেন, ‘আগামীকাল তো হাজিরা দেওয়ার তারিখ ছিল। এ খবর শোনার পর মনে হচ্ছে, গিয়ে আর কোনো লাভ নেই। আমি তো একবার গিয়েছি, তখন তাদের কোনো রেসপন্স পাইনি! আর প্রত্যেকটা মানুষকে কিছু না কিছু আকড়ে ধরে বেঁচে থাকতে হয়, আমার এখন একটাই অবলম্বন আব্রাম।

যেহেতু আব্রাম আছে, সময়ের ব্যাপ্তিকালে নিজেকে নতুনভাবে সাজিয়ে নিয়ে এগিয়ে যেতে হবে।’গত বছরের ২২ নভেম্বর সন্ধ্যায় শাকিব খান তার আইনজীবী শেখ সিরাজুল ইসলামের কার্যালয়ে যান। তার সহায়তায় অপু বিশ্বাসের ঠিকানায় তালাকের নোটিশ পাঠান শাকিব।

শেখ সিরাজুল ইসলাম জানান, আইন অনুযায়ী তালাক কার্যকর হওয়ার পর অপু বিশ্বাসকে বিয়ের দেনমোহর বাবদ সাত লাখ টাকা পরিশোধ করবেন শাকিব। আর ছেলের খরচ বাবদ এখন প্রতি মাসে অপুকে এক লাখ প্রদান করবেন।

সম্পর্কের টানাপোড়েনে শাকিব খানের সঙ্গ পাচ্ছে না আব্রাম। প্রায় তিন মাস ধরে বাবার মুখ দেখেনি সে। এখন শাকিব বলছেন, ‘আব্রামের ভালোর জন্য আমার সেরাটা দেওয়ার চেষ্টা করব’।

এ বিষয়ে প্রসঙ্গ টেনে অপু বলেন, ‘তালাক নোটিশ পাঠানোর পর প্রায় তিন মাস জয়ের সঙ্গে দেখা কিংবা ওভাবে জয়ের কোনো ধরনের খোঁজ নেয়নি শাকিব। এরপর তিনি ঠিক কী ধরনের খোঁজ-খবর রাখবেন কিংবা টেক-কেয়ার করবেন সেটি তিনিই ভালো বলতে পারবেন!’

পেশাগত কাজে ধীরে ধীরে ব্যস্ত হচ্ছেন অপু বিশ্বাসও। বেশ কয়েকটি বড় বাজেট ও ভালো মানের সিনেমায় অভিনয়ের বিষয়ে কথাবার্তাও চলছে। ১৭ বছর পর ‘শ্বশুরবাড়ি জিন্দাবাদ’ ছবির সিক্যুয়াল নির্মাণ করার ঘোষণা দেন পরিচালক দেবাশীষ বিশ্বাস। সেই সিক্যুয়ালে নায়িকা হিসেবে অভিনয়ের জন্য চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন অপু।

অপু বিশ্বাস বলেন, ‘আমাকে তো এ শহরে সারভাইভ করতে হবে। এর জন্য কাজের কোনো বিকল্প নেই। আর আমি যেহেতু অভিনয় ছাড়া অন্য কোনো কিছুকে পেশা হিসেবে নিইনি, তাই এটাকে অবলম্বন করেই বাকিটা জীবন বেঁচে থাকতে চাই।

শাকিব খান এখন আশিকুর রহমান পরিচালিত ‘সুপার হিরো’ ছবির কাজে অস্ট্রেলিয়ার সিডনিতে অবস্থান করছেন। অ্যাকশন-থ্রিলার ধাঁচের গল্পে নির্মিত ছবিতে তার বিপরীতে অভিনয় করছেন শবনম বুবলি। আসছে ১৭ কিংবা ১৮ ফেব্রুয়ারি ঢাকায় ফিরবেন তিনি। এরপরই শুটিংয়ের কাজে যাবেন ভারতে যাবেন। সেখান থেকে স্কটল্যান্ডে।

২০০৬ সালে পরিচালক এফ আই মানিক পরিচালিত ‘কোটি টাকার কাবিন’ ছবিতে নায়িকা হিসেবে শাকিব খানের বিপরীতে অভিনয় করেন অপু। সেই বছর থেকে ২০১৭ সাল পর্যন্ত এই জুটি একাধারে ৭০টির মতো ছবিতে অভিনয় করেন।

একসঙ্গে কাজ করতে গিয়ে এক সময় প্রেমের সম্পর্ক হয় তাদের। ২০০৮ সালের ১৮ এপ্রিল গোপনে বিয়ে করেন এই জুটি। ভারতের কলকাতার একটি ক্লিনিকে ২০১৬ সালের ২৭ সেপ্টেম্বর জন্ম হয় শাকিব-অপুর ছেলে আব্রাম খান জয়ের।

গত বছরের শুরুর দিকে শবনম বুবলির সঙ্গে ঘরোয়া পরিবেশে একটি স্থির চিত্রে শাকিব খানকে দেখা যায়। ছবিতে ‘ফ্যামিলি টাইম’ ক্যাপশন লিখে নিজের সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে প্রকাশ করেন বুবলি। এরপরই অপু বিশ্বাসের সঙ্গে সম্পর্কের অবনতি ঘটে শাকিব খানের।

এরপর একই বছরের ১০ এপ্রিল বিকেল চারটায় দীর্ঘদিন গোপনে থাকা বিয়ে ও সন্তানের বিষয়টি প্রকাশ্যে নিয়ে আসেন অপু। দেশের একটি বেসরকারি টিভি চ্যানেলে সাক্ষাৎকার দিতে গিয়ে সব গোপন কথা ফাঁস করে দেন। এরপর থেকেই তাদের সম্পর্কের টানাপোড়েন দিনকে দিন বাড়তে থাকে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *