এক তরুনীকে পেতে দুই গ্রামের সংঘর্ষ

স্থানীয় আর্টিকেল: এক প্রেমিকাকে নিয়ে দুই সহপাঠীর মধ্যে বিরোধের জের ধরে মথুরাপুর ও ধেরুয়াহাটি গ্রামবাসির মধ্যে পাল্টাপাল্টি ধাওয়া ও সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে।

আর ঘটনাটি ঘটেছে বগুড়ার ধুনট উপজেলায়। সংঘর্ষে উভয় পক্ষের অনন্ত ৬ জন আহত হয়েছেন। সোমবার বিকেলে উপজেলা মথুরাপুর বাজার এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় সূত্র জানায়, উপজেলার মথুরাপুর এমপিএসটি উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী আরিফ ও শাওনের মধ্যে এক প্রেমিকাকে নিয়ে বিরোধ রয়েছে। সোমবার বিকেলে এ বিষয় নিয়ে বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে দুই সহপাঠীর মধ্যে হাতাহাতির ঘটনা ঘটে।

শিক্ষার্থী শাওন বাড়িতে ফিরে বিষয়টি তার নানা ধেরুয়াহাটি গ্রামের আবুল হোসেনকে অবগত করে। এতে আবুল হোসেন ও তার পরিবারের লোকজন ক্ষুব্ধ হয়ে ওঠে।

এদিকে, অপর শিক্ষার্থী আরিফ মথুরাপুর গ্রামের সাদ্দাম হোসেন নামে এক শিক্ষকের কাছে মথুরাপুর বাজার এলাকায় প্রাইভেট পড়ে। মঙ্গলবার সকালের দিকে আরিফের উপর প্রতিশোধ নিতে আবুল হোসেন ও তার লোকজন মথুরাপুর বাজার এলাকায় প্রাইভেট শিক্ষকের কাছে যান। সেখানে তারা আরিফকে পেয়ে মারধর করতে থাকে। এসময় আরিফকে মারধরের কারণ জানতে চাইলে শিক্ষক সাদ্দাম হোসেনকেও তারা মারধর করে।

এরপর, এ ঘটনা নিয়ে মথুরাপুর ও ধেরুয়াহাটি গ্রামবাসির মধ্যে পাল্টাপাল্টি ধাওয়া ও সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এতে আহত হন আবুল হোসেন (৫৫), সোহেল রানা (২৫), শাওন (১৪), সাদ্দাম হোসেন (২৫), আরিফ (১৫) ও রাকিবুল (২০)।

আহতদের মধ্যে আবুল হোসেনকে প্রথমে ধুনট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আনা হয়। সেখানে অবস্থার অবনতি হলে তাকে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়েছে। ঘটনার পর এলাকায় চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে। সংবাদ পেয়ে প্রশাসনের পক্ষ থেকে ঘটনাস্থলে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

ধুনট থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) আব্দুর রাজ্জাক বলেন, পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করা হয়েছে। বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে। তবে এ ঘটনায় কোন পক্ষই থানায় লিখিত অভিযোগ করেনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *