মারা গেল বিশ্বের প্রবীণতম গরিলা

আর্টিকেল: ৬০তম জন্মদিন পালনের ঠিক তিনমাস পরেই মারা গেল বিশ্বের প্রবীণতম গরিলা ভিলা। বৃহস্পতিবার যুক্তরাষ্ট্রের স্যান ডিয়েগো জু সাফারি পার্কে বার্ধক্যজনিত কারণে গরিলাটি মারা যায়।

চিড়িয়াখানার কর্মকর্তারা বলেন, গরিলাটি তার পরিবারের সদস্যদের উপস্থিতিতেই মারা যায়। গত বছর অসুস্থ হয়ে পড়ায় তাকে একবার চিকিৎসাধীন থাকতে হয় কিন্তু শেষমেশ সে সুস্থ হয়।

সাফারি পার্কের তত্ত্বাবধায়ক র‌্যান্ডি রিচেস বলেন, ভিলা তার সারাজীবনে অনেক মানুষের মন ছুঁয়েছে। চিড়িয়াখানার সদস্য, অতিথি, স্বেচ্ছাসেবক ও কর্মীরা তাকে মিস করবে।

১৯৫৭ সালের অক্টোবর মাসে আফ্রিকার দেশ কঙ্গোতে জন্ম হয় এই স্ত্রী গরিলাটির। জন্মের দুই বছর পর ১৯৫৭ সালে তাকে স্যান ডিয়েগো জু’তে নিয়ে আসা হয়। ১৯৭৫ সালে তাকে সাফারি পার্কে নেয়া হয়।

যুক্তরাষ্ট্রে আসার আগে ভিলা কঙ্গোর ব্র্যাজাভিলে জু’তে ছিল। স্যান ডিয়েগো জু’র তৎকালীন সহকারী ব্যবস্থাপনা পরিচালক চার্লস শ তাকে পশুদের বিশ্ব স্কাউটিং ট্রিপে দেখেন। তিনি বলেন, আমরা তাকে অনেক দরকষাকষির মাধ্যমে পাই।

দ্য স্যান ডিয়েগো ইউনিয়ন জানায়, ১৩ বছর বয়সে একবার পালিয়ে গিয়ে ভিলা চিড়িয়াখানার কর্মকর্তাদের ভয় পাইয়ে দেয়। আবাসিক পশু-চিকিৎসক তাকে উদ্ধার করে ট্রানকিউইলেটর-ডার্ট পিস্তল দিয়ে গুলি করে ফিরিয়ে আনেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *