গৌতম গম্ভীর কি অবিক্রিতই থেকে যাবে?

খেলাধুলা: গম্ভীরের কথাতেই স্পষ্ট, কলকাতা নাইট রাইডার্স সম্ভবত নিলামে তাকে আর কিনতে চাইছে না। গৌতম গম্ভীরের কাছে ইতিহাস হতে চলেছে কলকাতা নাইট রাইডার্সের জার্সি।

দীর্ঘসময় কলকাতা নাইট রাইডার্সে কাটিয়ে দিয়েছেন ভারতের জাতীয় দলের সাবেক ওপেনার গৌতম গম্ভীর। ২০১১ সালে বিশ্বকাপ ফাইনালে তার ইনিংস ইতিহাসে ঠাঁই পেয়েছে।

সে বছরই নাইটদের অধিনায়ক হয়েছিলেন গম্ভীর। সেই কেকেআর এবছর আর দলে রাখেনি। তবে কলকাতা নাইট রাইডার্সকে ভুলতে পারবেন না গম্ভীর।

বিদায়বেলায় নাইট রাইডার্সে তার প্রথম দিনের অভিজ্ঞতার কথা টেনে এনে গম্ভীর বলেন, ‘২০১১ সালে জানুয়ারিতে বিশ্বকাপের দলে থাকাই ছিল আমার ভাবনায়।

আইপিএল নিয়ে ভাবিইনি। তবে নিলামের দিন মনটা কেমন যেন করছিল। তবে ৭ বছর পরে জীবন ও ক্রিকেট নিয়ে আমার ভাবনা আরও বিস্তৃত হয়েছে।’

ক্যারিয়ারের সায়াহ্নে পৌঁছে গম্ভীর নিজেকে মেন্টর হিসেবে দেখতে চাইছেন। নাইট রাইডার্স, সানরাইজার্স হায়দরাবাদ, দিল্লি ডেয়ারডেভিলস বা মুম্বাই ইন্ডিয়ানসের মত দলে এই সুযোগ পেলেও তার সমস্যা নেই বলে জানিয়েছেন এই বাঁ হাতি ব্যাটসম্যান।

অধিনায়ক হিসেবে দুই বার নাইট রাইডার্সকে চ্যাম্পিয়ন করেছেন গৌতম গম্ভীর। সেই গম্ভীরকে এবার নিলামের জন্য মুক্ত করে দিয়েছে কেকেআর। যদিও নিলামে গম্ভীরকে দলে নেওয়ার সুযোগ পাবে নাইট রাইডার্স। তবে এ নিয়ে পুরনো দলের প্রতি কোনও অনুযোগ নেই গৌতম গম্ভীরের।

তিনি বলেছেন, ‘আমাকে ব্যাটস্যান, অধিনায়ক ও মানুষ হিসেবে নিজেকে গড়ে তোলার একটা প্ল্যাটফর্ম দিয়েছিল কেকেআর। তবে ওদের সিদ্ধান্তকে আমি সমর্থন করি।

এই সিদ্ধান্তের পিছনে ওদের কোনো ভাবনা থাকতে পারে। তবে বেগুনি জার্সি মিস করব। আমার একেবারেই খারাপ লাগেনি। হয়তো আমার জন্য নতুন চ্যালেঞ্জ অপেক্ষা করে আছে। আমি চ্যালেঞ্জ নেওয়ার জন্য তৈরি।’

গম্ভীরের কথাতেই স্পষ্ট, কলকাতা নাইট রাইডার্স সম্ভবত নিলামে তাকে আর কিনতে চাইছে না। গৌতম গম্ভীরের কাছে ইতিহাস হতে চলেছে কলকাতা নাইট রাইডার্সের জার্সি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *