উন্নয়নশীল দেশ হওয়ার তিনটি শর্তই পূরণ করলো বাংলাদেশ

জাতীয় আর্টিকেল: আগামী মার্চ মাসেই বাংলাদেশ উন্নয়নশীল দেশে পরিণত হবে বলে জানিয়েছেন বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ। সোমবার সচিবালয়ে বাংলাদেশে নিযুক্ত ইন্দোনেশিয়ার রাষ্ট্রদূত রিনা পি সোইমারনুর সঙ্গে বৈঠক শেষে তিনি এ কথা জানান।

তোফায়েল বলেন, স্বল্প উন্নত দেশ থেকে উন্নয়নশীল দেশ হতে গেলে তিনটি শর্ত পূরণ করতে হয়। প্রথমটা হলো- মাথাপিছু আয়। মাথাপিছু আয় ১২৩০ করা দরকার। আমাদের এখন মাথাপিছু আয় ১৩শ’র কাছাকাছি। এই বছর সেটা ১৬শ’ হয়ে যাবে।

দ্বিতীয় হলো- মানবসম্পদ। এটা দরকার ৬৬ শতাংশ। আমাদের রয়েছে ৭২. ৯ শতাংশ। তৃতীয়ত হলো- অর্থনৈতিক ভঙ্গুরতা। এটা দরকার ৩২। আমাদের রয়েছে ২৫। তার মানে তিনটাই আমরা উত্তীর্ণ হয়ে যাচ্ছি।

তোফায়েল বলেন, সুতারাং আগামী মার্চ মাসে যখন মিটিং হবে তখন আমরা উত্তীর্ণ হয়ে যাবে। অর্থাৎ ২০২১ সালে আমরা উন্নয়নশীল দেশে পরিণত হয়ে গেলাম। এটার বাস্তবায়ন হবে ২০২৪ সালে।

বাংলাদেশ যখন উন্নয়নশীল দেশে পরিণত হয়ে যাবে তখন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে বিশাল অর্ভথনা জানানো হবে বলেও জানান মন্ত্রী। মন্ত্রী বলেন, আমরা স্বল্প উন্নত দেশ থেকে উন্নয়নশীল দেশে পরিণত হতে চলেছি। এটা বাংলাদেশের জন্য একটা গৌরবের বিষয়। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে যে বাংলাদেশ অর্থনৈতিকভাবে আজকে একটা শক্ত অবস্থানে আছে এটা হলো তার প্রমাণ। আমরা শেখ হাসিনাকে বিশাল অর্ভ্যথনা জানাব।

মন্ত্রী আরো বলেন, এটা নিয়ে বাংলাদেশের মানুষ গর্ব করবে। গণমাধ্যম গর্ব করবে যে, আমরা আর দরিদ্র না। আমরা এখন উন্নয়নশীল দেশের মানুষ। এই সেই বাংলাদেশ, স্বাধীনতার পর যার অনেক সমালোচনা করা হয়েছিল। অনেকে বলেছিল, বাংলাদেশ একটি তলাবিহীন ঝুড়ি। অনেকে বলেছিল, বাংলাদেশ হবে দরিদ্র দেশের রোল মডেল। আজকে তাদের সেই চিন্তা মিথ্যা প্রমাণ হতে চলেছে।

তিনি বলেন, পৃথিবীতে স্বল্প উন্নত দেশ ৪৮টি। আমরা অনেক উন্নয়নশীল দেশেরও অনেক ওপরে। অনেক উন্নয়নশীল দেশের তুলনায় আমাদের রফতানি অনেক বেশি, রিজার্ভ বেশি রেমিটেন্স বেশি, বিদ্যুৎ উৎপাদন বেশি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *