উপহার কেনার ক্ষেত্রে জেনে রাখুন কিছু টিপস

লাইফস্টাইল: আমরা মাঝে মাঝেই কারো না কারো জন্য উপহার কিনেই থাকি। তবে গিফট কেনার সময় খেয়াল করেছেন কী? বেশির ভাগ মানুষ তাদের নিজেদের পছন্দের গিফটই দিয়ে থাকে। কিন্তু এটা কি কখনো চিন্তা করে দেখেছেন যে আপনার যেটা পছন্দ সেটা আপনার বন্ধু অথবা যাকে গিফট দিলেন তার কি কাজে লাগবে? গিফট কিছু দিতে হলে এমন গিফট দেয়া দরকার যাকে দিবেন তার জেনো কাজে লাগে। আসুন আজ আমরা জেনে নেই গিফট কেনার জন্য কিছু টিপস।

উপহার হিসেবে অপ্রয়োজনীয় অনেক কিছুর থেকে প্রয়োজনীয় একটা কলম অথাবা টুথব্রাশও হতে পারে সেরা উপহার। তবে কাকে দিচ্ছেন এবং তার সাথে আপনার সম্পর্কটা কেমন সেটাও মাথায় রাখতে হবে।

উপহার যদি বন্ধুর জন্য কেনা হয় তাহলে তার পছন্দ বা অপছন্দ আপনি বেশ ভালোই জানবেন। আপনার কেবল কিছু বিষয় খেয়াল রাখতে হবে। এই সময়ে তার কী দরকার হতে পারে, কোন জিনিসটা সে নিজের জন্যে খুঁজছিলো হয়তো, কী পেলে তার এখন বেশ কাজে লাগবে এইসব চিন্তা মাথায় রেখে উপহার বাছাই করুন।

যাকে উপহার দিবেন সে হয়তো খুব দরকারের একটা জিনিস কিনছে না অনেকদিন হয়, সেটা জানলে নির্দ্বিধায় কিনে নিতে পারেন তার জন্য। সে কেবল উপহার পেয়েই খুশি হবে না, তার প্রতি আপনার খেয়াল রাখার বিষয়টিও তাকে আনন্দ দেবে।

উপহারের মোড়ক খোলার পর তার চমকে যাওয়া হাসিমুখ দেখতে আপনার কতোটা ভালো লাগবে তা আপনিই ভালো জানেন। তার কোনো শখের জিনিস আছে, কিন্তু নিজের জন্য কিনছে না হয়তো বাজে খরচা ভেবে, সাধ্যে থাকলে উপহার দিন সেটাই।

যদি কোন জিনিশের দাম বেশি হয় কয়েকজন বন্ধু মিলেও কিনতে পারেন। উপহার হিসেবে বন্ধুকে সবচেয়ে বেশি খুশি করতে পারবে সেই জিনিষটা। উপহার দেয়ার বেলায় বন্ধুর শখকে প্রাধান্য দেবেন, নিজের পছন্দকে নয়। কারণ আপনার পছন্দ তার সাথে মিল্বে না এতাই স্বাভাবিক।

সে গাছপালার শখ রাখলে তার বারান্দার বাগানে আপনারও খানিকটা অবদান হতে পারে। দুই/একটি গাছ নিয়ে যান উপহার হিসেবে। মোড়ক ছাড়া নেবেন বলে সেটা উপহার হবে না, তা কিন্তু নয়। বরং শখের জিনিষ পেয়ে তার ভালো লাগবে অনেক।

যদি লেখার অভ্যাস থাকে, একটা নোটবুক দিতে পারেন তাকে। লেখার সময় নোটবুকটা খুলে আপনার কথা ভেবে আবারো একবার হাসি ফুটবে তার মুখে। বাইরে ঘুরে বেড়ানোর অভ্যাস থাকলে তাকে দিতে পারেন ব্যাকপ্যাক। অথবা একটি রোদচশমা, যদি সে ব্যবহার করে থাকে।

দিনক্ষন ভুলে যাওয়া ভোলাবাবুকে আর কিছু দিলেও সাথে একটি টেবিল ক্যালেন্ডার ধরিয়ে দিন। সে জানবে আপনি তার উপকারই করছেন! মেয়ে হলে এবং খুব একটা টমবয় স্বভাবের না হলে তাকে গয়না কিনে দিন নিশ্চিন্তে, তবে তার রুচির কথা খেয়াল রেখেই।

পছন্দের নকশার একজোড়া কানের দুল, বা কয়েকগাছি চুড়ি উপহার হিসেবে তার জন্য দারুণ হবে। যদি নতুন চাকরিতে জয়েন করে থাকেন তাহলে তাকে দিতে পারেন টাই অথবা কোট পিন। যদি কারো নতুন সংসার দেখতে যান তাহলে শো-পিস অথবা রান্না ঘরের টুকিটাকি কিছু নিয়ে যেতে পারেন।

ইসব টুকিটাকি বিষয় খেয়াল রেখে উপহার বাছাই করুন সবসময়। উপহার মানেই ঘড়ি, চকোলেট, বা একটু দামী কিছু হওয়া চাই, সেই মনোভাব থেকে এখন বেরিয়ে আসার পালা। খুব কাছের মানুষ হলে তাকে নির্দ্বিধায় তাকে জিজ্ঞাসা করে নিতে পারেন যে তার কি লাগবে। বা এখন তার কিছু প্রয়োজন আছে কিনা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *