প্রথম ম্যাচ জয়ের পর সাকিব যা বললেন

খেলাধুলা: আজ টস হেরে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে বাংলাদেশি বোলারদের বোলিং তোপে ১৭০ রানেই আটকে গেলো জিম্বাবুয়ের ইনিংস। সেই লক্ষ্য পূরণে খুব একটা বেগ পেতে হয়নি টাইগারদের। ১২৯ বল ও ৮ উইকেট বাকি রেখে বিশাল এক জয় নিয়ে মাঠ ছাড়া বাংলাদেশ বছরের প্রথম ম্যাচে পেল স্বস্তি।

তবে ম্যাচ শেষে সংবাদ সম্মেলনে ম্যাচের সেরা খেলোয়াড় সাকিব আল হাসান জানালেন, জিম্বাবুয়ের কাছ থেকে আরও ভালো লড়াই প্রত্যাশা করেছিলেন তিনি। একইসাথে নিজ দলের বোলারদেরও কৃতিত্ব দেন তিনি।

তিনি বলেন, ‘আমি মনে করি আমাদের পারফরমেন্স প্রত্যাশিত। আমরা আশা করেছিলাম ওরা আরও ভালো ব্যাটিং করবে। এর কৃতিত্ব আমাদের বোলারদের দিতে হবে, যেভাবে আমরা বোলিং করেছি। আজ মুস্তাফিজ অনেক ভালো বোলিং করেছে, মাশরাফি ভাই অনেক ভালো বোলিং করেছেন। রুবেল সবসময়ই ভালো বল করছে। ও এমন একটা সময়ে এসে বল করে যখন ব্যাটসম্যান সেট হয়ে আছে অথবা রান পাচ্ছে। ওর জন্য তাই ভালো করা কঠিন। ওভারঅল সবার বোলিংই আজকে ভালো ছিল। এমনকি নাসিরও যে চার ওভার বল করেছে, সেও অনেক ভালো বল করেছে।’

সাকিবের বলে দুর্দান্ত ফিল্ডিং করে প্রশংসা কুঁড়িয়েছেন মিঃ ডিফেন্ডেবল-মুশফিক। ম্যাচ শেষে সাকিবও মুশফিককে ভাসালেন প্রশংসার সাগরে, ‘আমি লাকি ছিলাম, আর মুশফিকও বলটা ভালো গ্রিপ করেছে। কারণ ডাউন দ্যা লেগ গ্রিপ করা যেকোনো কিপারের জন্যই অনেক ডিফিকাল্ট হয়। সেদিক থেকে আজকে তার দিনটাও খুব ভালো ছিল। বেশ কিছু ক্যাচও ধরেছে।’

সংবাদ সম্মেলনে সাকিব আরো বলেন, ‘আমাদের দ্রুত উইকেট নেওয়া প্রয়োজন ছিল। সেটা প্রথম ওভার হোক কিংবা দ্বিতীয় ওভার হোক। যেহেতু নতুন বলটাতে উইকেট নেওয়া আমাদের খুবই জরুরী ছিল। এসব উইকেটে যদি ব্যাটসম্যান সেট হয়ে যায় আর শেষদিকে উইকেট হাতে থাকে তাহলে আসলে শেষদিকে অনেক রান করা সম্ভব। এ কারণেই আমাদের প্ল্যান ছিল যত দ্রুতই হোক আমরা যেন দু’টা বা তিনটা উইকেট নিতে পারি। সেদিক থেকে আমরা অনেক সাকসেসফুল ছিলাম মনে করি।’

আজকের এই ম্যাচটি ছিল হোম অব ক্রিকেট খ্যাত মিরপুরের শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামের ৯৯তম ম্যাচ। মঙ্গলবার শ্রীলঙ্কা ও জিম্বাবুয়ের মধ্যকার ম্যাচ দিয়ে ম্যাচের শতক পূর্ণ করবে ভেন্যুটি। এ প্রসঙ্গে সাকিব বলেন, ‘মিরপুরে তো আমাদের অনেক ম্যাচ হয়। স্বাভাবিকভাবেই একশ ম্যাচ হবে, দেড়শ ম্যাচ হবে, দুইশ ম্যাচ হবে… এটাই এক্সপেক্ট করি। এই মাঠের জন্য ভালো একটা ব্যাপার।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *