প্রতি বছর প্রায় ৭ মিলিয়ন ফুলের চারা রোপন করা হয় এই বাগানে

বছরে মাত্র দুটি মাস, যেন পৃথিবীর সব সৌন্দর্য নিয়ে তার নিজস্ব ডালী সাজিয়ে বসে। এমনই একটি জায়গা হচ্ছে কোকেনাফ গার্ডেন। অনেকে একে আবার কিচেন গার্ডেন নামেও চেনেন। ইউরোপের সবচেয়ে বড় ফুলের বাগান এবং এটি প্রায় ৭৯ একর জায়গা জুড়ে বিস্তৃত। অবাক করার মতো তথ্য হলো, প্রতি বছর প্রায় ৭ মিলিয়নের মতো ফুলের চারা এই বাগানে রোপন করা হয়। যা বসন্তে রঙিন ফুলের সৌন্দর্য নিয়ে পর্যটকদের বিমোহিত করে রাখে।

আপনি বসন্তের সময় ওখানে বেড়াতে গেলে গ্রামের চারপাশ জুড়ে দেখতে পাবেন শুধু রঙিন ফুলের বাহার। এই ভ্রমণে আপনি দেখতে পাবেন হল্যান্ডের বিখ্যাত টিলিপগুলো। দেখে যেনো মনে হয় একটি ফুলের তোড়ায় মাঝে পুরো একটি গ্রাম সাজানো আছে।

এই ফুলের বাহার দেখতে গেলে আপনাকে অবশ্যই মনে রাখতে হবে যে আপনি যখন তখন সেখানে গেলেই হবে না। কারণ বসন্তেন সময়টাতে মাত্র দুই মাসের জন্য খোলা রাখে এই বাগান।

তবে সুবিধা হচ্ছে আপনি এখানে বেড়াতে গেলে ভ্রমণ উপযোগী সব কিছুই পাবেন। কারণ এখানে পুরোদিন ব্যয় করার মতো পিকনিক স্পট হিসেবে এই বাগান ব্যবহার করা হয়ে থাকে।

আপনার যদি মাছ ধরার সখ থাকে, তাহলে এই রঙিন বাগানে বসে আপনি সেই কাজটিও করতে পারেন। কারণ এখানে লেকের পাড়ে মাছ ধরার ব্যাবস্থাও করা হয়।

এখানে যাওয়ার আগে যে বিষয়গুলো জেনে নিতে পারেন। যেমন: শুধুমাত্র মধ্য মার্চ থেকে মধ্য মে পর্যন্ত খোলা থাকে। লকার ব্যবহারের সুবিধা আছে। পার্কটি হুইলচেয়ার প্রবেশযোগ্য। সমস্ত পার্ক জুড়ে ওয়াইফাই ব্যবহারের ব্যাবস্থা আছে। এছাড়াও বেড়াতে যাওয়ার আগে আপনি অবশ্যই সেখানকার টিকিট বুকিং ও অন্য সকল নিয়ম কানুন ভালো মতো জেনে গেলে ভালো করবেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *