হায়রে ‘নো’ বল!

খেলাধুলা: সিডনিতে অ্যাশেজের পঞ্চম ও শেষ টেস্টে ইংল্যান্ডের হয়ে অভিষেক হয়েছে লেগস্পিনার মেসন ক্রেনের। ২০ বছর বয়সী এই তরুণ শনিবার দারুণ খেলতে থাকা অস্ট্রেলিয়ান ব্যাটসম্যান উসমান খাজাকে আউট করে পেয়েই গিয়েছিলেন নিজের প্রথম উইকেট। তবে নো বলের ফাড়ায় পড়ে সেই উইকেটটি তখন আর পাওয়া হয়নি তার। তিনি এই প্রজন্মের ইংলিশ বোলারদের মাঝে চতুর্থ যার প্রথম টেস্ট উইকেট নো বলের কারণে বাতিল হয়েছে। চলতি অ্যাশেজের চতুর্থ টেস্টে ইংলিশ পেসার টম কুরানের সাথেও ঠিক একই ঘটনা ঘটেছে।

বেন স্টোকস- এই ইংলিশ অল রাউন্ডারের অভিষেক অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ২০১৩ সালে। অ্যাডিলেডে অ্যাশেজের দ্বিতীয় টেস্টে প্রথমে ব্যাট করতে নামে অস্ট্রেলিয়া। অস্ট্রেলিয়ার স্কোর তখন ৫ উইকেটে ৩৬৭ রান। দলটির উইকেটকিপার-ব্যাটসম্যান ব্র্যাড হাডিন ৫১ রানে ব্যাট করছিলেন। সে সময় স্টোকসের বলে হাডিন উইকেটের পেছনে ক্যাচ তুলে দেন। তবে টিভি রিপ্লেতে দেখা যায় স্টোকসের সামনের পা দাগের কয়েক সেন্টিমিটার বাইরে পড়েছে। বলটি নো হওয়ায় বেঁচে যান হাডিন এবং ১১৮ রানের ইনিংস খেলেন। স্টোকস সেই ইনিংসে ১৪৮ রান করা তৎকালীন অজি অধিনায়ক মাইকেল ক্লার্ককে ফিরিয়ে নিজের উইকেটের খাতা খোলেন।

মার্ক উড- ২০১৫ সালে এই ইংলিশ ডানহাতি পেসারের অভিষেক হয়েছিল লর্ডসে, নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে। প্রথম ইনিংসে কিউই ওপেনার মার্টিন গাপটিলকে মাত্র ২৪ রানে আউট করেছিলেন তিনি। তবে উডের পা ছিল দাগের অনেক সামনে। প্রথম স্লিপে গাপটিলের ক্যাচটি ধরা পড়লেও সে যাত্রায় বেঁচে যান। নিজে ৭০ রানের ইনিংস খেলেন এবং নিউজিল্যান্ডকে ১৪৮ রানের উদ্বোধনী জুটি এনে দেন। সেই ইনিংসেই ব্রেন্ডন ম্যাককালামকে আউট করে নিজের উইকেটের খাতা খোলেন উড।

টম কুরান- ক্রেনের এক টেস্ট আগে অর্থাৎ ২০১৭ সালের বক্সিং ডে’তে মেলবোর্ন টেস্টে অভিষেক হয় কুরানের। অজি ওপেনার ডেভিড ওয়ার্নারকে ৯৯ রানে সাজঘরের রাস্তা দেখিয়েছিলেন এই পেসার। মিড উইকেট অঞ্চলে ক্যাচ তুলে দেয়ার পর হাঁটা শুরু করেছিলেন ওয়ার্নার। কুরানও তার প্রথম উইকেটের আনন্দ উদযাপন করছিলেন। তবে টিভি রিপ্লেতে দেখা যায় এই পেসারের পা দাগ অতিক্রম করেছে। তাই ওয়ার্নারকে ফিরিয়ে আনা হয়। তবে ১০৪ রান করেই তিনি উইকেট হারান। আর কুরানও অজি অধিনায়ক স্টিভেন স্মিথকে শিকার করেন নিজের প্রথম টেস্ট উইকেট হিসেবে।

মেসন ক্রেন- আর ক্রেনের ঘটনা তো শনিবারই ঘটেছে। লাঞ্চবিরতির আগের ওভারের চতুর্থ বলে অজি ব্যাটসম্যান উসমান খাজার প্যাডে বল লাগে। আপিল করার পরও আম্পায়ার আউট না দেয়ায় রিভিউ নেন ইংলিশ অধিনায়ক জো রুট। সেখানে দেখা যায়, বল খাজার অফ স্টাম্পে আঘাত করছে। কিন্তু তা হলে কি হবে। ক্রেনের পায়ের কোন অংশই যে পপিং ক্রিজের ভেতরে ছিল না। মাত্র কয়েক সেন্টিমিটারের জন্য তখন প্রথম উইকেটটা পান নি এই তরুণ। সেসময় খাজার রান ছিল ১৩২। অবশ্য ১৭১ রানে তাকে আউট করেই টেস্ট ক্যারিয়ারের প্রথম উইকেট পেয়েছেন ক্রেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *