‘সরকার চেয়েছে চালের দাম বৃদ্ধি পাক’

জাতীয় আর্টিকেল: সরকার চেয়েছে চালের দাম বৃদ্ধি পাক। কৃষক ন্যায্য মূল্য পাবে বলে চালের দাম বৃদ্ধির বিষয়টি সরকারের পরিকল্পনায় ছিল। কিন্তু প্রতি কেজি চালের দাম ৫০ টাকার বেশি হওয়াটা মানুষের জন্য বড় ধরনের সমস্যা হয়ে দাঁড়িয়েছে।

রবিবার (২৪ ডিসেম্বর) সচিবালয়ে গ্রামীণ ব্যাংকের ২০১৬ সালের ক্যালেন্ডার বছরের লভ্যাংশ হস্তান্তর অনুষ্ঠানে তার দফতরে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিত সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন।

লভ্যাংশ হস্তান্তর অনুষ্ঠানে গ্রামীণ ব্যাংকের ব্যাবস্থাপনা পরিচালক রতন কুমার লাল অর্থমন্ত্রীর কাছে ৬ কোটি ১৭ লাখ ৪০ হাজার টাকা হস্তান্তর করে।

মন্ত্রী বলেন, গ্রামীন ব্যাংক আগের চেয়ে ভাল করছে। বাংলাদেশের সাধারণ জনগোষ্ঠীর জীবনমান উন্নয়নে ব্যাংকটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে বলে আমি মনে করি।

‘সাড়ে পাঁচ লাখ বাংলাদেশি মানুষ দরিদ্র হচ্ছে’ আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম সানেম পত্রিকায় প্রকাশিত এমন খবরের বরাদ দিয়ে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, বিষয়টি তাদের নিজেদের পর্যবেক্ষণ, এটা সঠিক নয়। তবে চালের দাম বাড়ায় দেশের মানুষ কিছুটা কিছুটা বেকায়দায় আছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *